Categories
রাজ্য

উড়িষ্যার জেলেই মারা গেলেন আইকোর কর্তা অনুকুল মাইতি।

উড়িষ্যার জেলেই মারা গেলেন আইকোর কর্তা অনুকুল মাইতি।২০১৭ সালে জেল হয় তার। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল, বেআইনি অর্থলগ্নি সংস্থার মাধ্যমে বাজার থেকে কোটি কোটি টাকা তোলার। অভিযোগের ভিত্তিতে তাকে গ্রেফতার করে সিবিআই। তার আগে ২০১৫ সাকে তাকে গ্রেফতার করে সিআইডি।

সিবিআইয়ের রিপোর্ট অনুযায়ী, বেআইনি ভাবে পশ্চিমবঙ্গ, ত্রিপুরা, ঝাড়খণ্ড এবং ওড়িশা-র কয়েক লক্ষ লগ্নিকারীর কাছ থেকে প্রায় ৩০০০ হাজার কোটি টাকা তুলেছিলেন অনুকুল মাইতি। স্ত্রী কণিকা মাইতিকেও নিজেদের হেফাজতে নেয় সিবিআই। গ্রেফতারির পর আইকোর আধিকারিকে ভুবনেশ্বরের ঝারপড়া বিশেষ কারাগারে রাখা হয়।
এখনও বিচারাধীন রয়েছে সেই মামলা।

কারাবাসে থাকা কালীন বেশ করেকবার অসুস্থ হয়ে পরেছিলেন অনুকুল মাইতি। ভর্তি করা হয়েছিল হাসপাতালেও। শনিবার রাতে ফের শারীরিক ভাবে অসুস্থ হয়ে পরেন তিনি। তাকে নিজে যাওয়া হয় হাসপাতালে। সেখানেই তার মৃত্যু হয় বলে জানা গেছে। উচ্চ রক্তচাপ এবং ডায়াবিটিসের রোগী ছিলেন অনুকূল। কণিকা মাইতি জানান, স্বামীর মৃত্যুর খবর জেল কর্তৃপক্ষ ফোনের মাধ্যমে জানিয়েছে।

পরিবার সূত্রে খবর, কণিকা জেলে ছিলেন। কয়েকমাস আগেই জেল থেকে মুক্তি পেয়েছেন তিনি। এবং এদিন সকালেই ভুবনেশ্বরের উদ্দেশ্যে রওনা দ্রন কণিকা। কিন্তু মৃত্যুর সঠিক কারণ এখনও জানা সম্ভব হয়নি। কারাগারের তথ্যে স্পষ্ট নয় মৃত্যুর কারণ। পরিবার জানিয়েছে, এই মামলায় অনুকূল ও তার স্ত্রীর সাথে আরও বেশ কয়েকজন গ্রেফতার হয়েছিল।

উড়িষ্যার জেলেই মারা গেলেন আইকোর কর্তা অনুকুল মাইতি। তারা সকলেই জামিন পেয়েছেন। এবং সম্প্রতি কটক হাইকোর্ট থেকে জামিন পেয়েছিলেন অনুকূল মাইতি। কিন্তু বন্ডের টাকা জমা করতে না পারায় জামিনের পরেও জেল থেকে ছারা পাননি আইকোর কর্তা অনুকুল মাইতি।