Categories
দেশ রাজ্য

পাঁচটি রাজ্য থেকে ফিরলে, থাকতেই হবে সরকারি কোয়ারেন্টাইনে

পরিযায়ী শ্রমিক ও অন্যান্য কাজে ভিনরাজ্যে আটকে পড়া মানুষেরা রাজ্যে ফিরছেন।পাশাপাশি মুর্শিদাবাদ, মালদহের মতো তুলনামূলক কম সংক্রমণের জেলাগুলি থেকে এখন অনেক বেশি করোনা পজিটিভ ধরা পড়ছে।

বুধবার নবান্নে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, ভিন রাজ্য থেকে ফেরা শ্রমিকদের কোয়ারেন্টাইনে থাকার ব্যাপারে রাজ্য সরকার একটি নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছে।বিশেষ করে পাঁচটি রাজ্য থেকে যে শ্রমিকরা বাংলায় ফিরবেন তাঁদের থার্মাল স্ক্রিনিংয়ের পর ইনস্টিটিউশনাল কোয়ারেন্টাইনে রাখা হবে। বাকিদের ১৪ দিন হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে।

কোন পাঁচটি রাজ্য থেকে ফিরলে সরকারি কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে?

মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, মহারাষ্ট্র, দিল্লি, গুজরাত, মধ্যপ্রদেশ এবং তামিলনাড়ু থেকে ফিরলে সরকারি কোয়ারেন্টাইনে রাখা হবে। কারণ, এই পাঁচটি রাজ্যই দেশে সংক্রমণের নিরিখে উপরের দিকে রয়েছে।

“১৪ দিন পরে কোয়ারেন্টাইনে থাকা ব্যক্তিদের নমুনা পরীক্ষা হবে। তার আগে করে লাভ নেই।” তবে যাঁরা হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকবেন তাঁরা যাতে গৃহবন্দিই থাকেন।

ইনস্টিটিউশনাল কোয়ারেন্টাইনের জন্য স্কুলগুলিকে কোয়ারেন্টাইন সেন্টার হিসেবে ব্যবহার করা হবে। ৩০ জুন পর্যন্ত স্কুল বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার। তবে সরকারি কোয়ারেন্টাইনে থাকা ব্যক্তিদের পরিবার যদি চায় তাঁদের বাড়ির খাবার দিয়ে আসতে পারবেন। তবে এক্ষেত্রে মুখ্যমন্ত্রী প্রশাসনিক কর্তাদের বারবার বলেছেন, “দেখবেন খাবার দিতে গিয়ে যেন বাড়ির লোকের মধ্যে করোনা না ঢুকে পড়ে!”