Categories
রাজ্য

দিলীপকে আটকেছিল পুলিশ,অভিষেককে জনতা

কাকদ্বীপের পথে রওনা হয়েও গাড়ি ঘুরিয়ে ফিরতে হয় অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে।

আমফানের জেরে তিন দিন ধরে বিদ্যুৎবিচ্ছন্ন দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার বিস্তীর্ণ এলাকা। এই মর্মে বিদ্যুতের দাবিতে শনিবার জাতীয় সড়ক অবরোধ করেন স্থানীয়রা। যার জেরে কাকদ্বীপে মুখ্যমন্ত্রীর প্রশাসনিক বৈঠকে পৌঁছনো হল না ডায়মন্ড হারবারের সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের।

বিদ্যুতের দাবিতে বিক্ষোভ না দেখানোর জন্য শনিবার আবেদন জানিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। কিন্তু সেই আবেদন কানে তোলেননি ভুক্তভোগাীরা। এদিন মুখ্যমন্ত্রীর আবেদনের পরেও পথ অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিস্তীর্ণ এলাকার মানুষজন। ফলে কাকদ্বীপের পথে রওনা হয়েও গাড়ি ঘুরিয়ে ফিরতে হয় অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে।

শনিবার ঘূর্ণিঝড় আমফান পরবর্তী পরিস্থিতি নিয়ে কাকদ্বীপে প্রশাসনিক বৈঠক করেন মমতা। সেখানে প্রশাসনিক কর্তাদের প্রয়োজনীয় নির্দেশ দেন তিনি। সঙ্গে তিনি জানান, পথ অবরোধের জেরে আসতে পারেননি সাংসদ অভিষেক।

প্রসঙ্গত, শনিবার আমফান বিধ্বস্ত এলাকায় ত্রাণ দিতে বারুইপুরের উদ্দেশ্যে যাত্রা করে পাটুলিতে পুলিশের বাধায় ফিরে আসতে হয় বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষকে। দিলীপবাবু বলেন, দরকারে পায়ে হেঁটে যাব আর্ত মানুষের কাছে।